প্রথম নারী চিকিৎসক হিসেবে ব্রি. জেনারেল হলেন নাজমা বেগম

বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর ইতিহাসে চিকিৎসা প্রশাসন থেকে প্রথম নারী কর্মকর্তা হিসেবে ব্রিগেডিয়ার জেনারেল পদে পদোন্নতি পেয়েছেন কর্নেল নাজমা বেগম।

তিনিই প্রথম নারী কর্মকর্তা, যিনি ফিল্ড অ্যাম্বুলেন্সের অধিনায়ক হিসেবে নিযুক্ত হন। বৃহস্পতিবার (৮ অক্টোবর) আন্তঃবাহিনী জনসংযোগ পরিদফতরের (আইএসপিআর) এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

জাতিসংঘের ইতিহাসে প্রথম নারী কন্টিনজেন্ট কমান্ডার হিসেবে দু’বার জাতিসংঘের লেভেল-২ হাসপাতাল কমান্ড করেন নাজমা বেগম। পাশাপাশি দু’বার মিশন এরিয়ায় কান্ট্রি সিনিয়রের দায়িত্বও পালন করেন তিনি।

এছাড়া বাংলাদেশ বিমান বাহিনীতে চাকরিকালে তিনি দুটি (বিএএফ বেস জহুর এবং বেস বাশার) মেডিকেল স্কোয়াড্রন কমান্ড করেন। জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা মিশনে তিনি ফোর্স কমান্ডার, এসআরএসজি,

মধ্য আফ্রিকা প্রজাতন্ত্রের সেনাপ্রধান এবং প্রতিরক্ষামন্ত্রীর প্রশংসাপত্র লাভ করেন। ২০১৬ এবং ২০১৯ সালে তিনি ‘মিলিটারি জেন্ডার অ্যাডভোকেট’ পুরস্কারের জন্য মনোনীত হন।জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা মিশনে ব্রিগেডিয়ার জেনারেল নাজমা বেগমের অবদানের কথা উল্লেখ করে মধ্য আফ্রিকা প্রজাতন্ত্রে

নিযুক্ত জাতিসংঘ মহাসচিবের বিশেষ দূত বলেন, বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর মেডিকেল কন্টিনজেন্টের অবদান শুধু জাতিসংঘ ও স্থানীয়দের চিকিৎসা সেবার জন্য সবাই স্মরণ করবে না, বরং সর্বপ্রথম নারী কমান্ডার হিসেবে কর্নেল (তৎকালীন) নাজমার জন্যও স্মরণীয় হয়ে থাকবে। বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর চিকিৎসা প্রশাসনে

ব্রিগেডিয়ার জেনারেল পদে নাজমা বেগমের এ পদোন্নতি নারীর ক্ষমতায়নে এক নতুন অধ্যায়ের সূচনা করল।

Leave a Reply

Your email address will not be published.